কানাডার ইউকনে মুদিখানা যেতে হলেও পাড়ি দিতে হয় ৬০০ কিমি!

Monday, November 22 2021, 6:38 am
highlightKey Highlights

অবিশ্বাস্য মনে হলেও ঘটনাটি সম্পূর্ণ বাস্তব। কানাডার ইউকনের বাসিন্দাদের সামান্য মুদিখানায় যেতে হলেও প্রায় ৬০০ কিমির পথ পাড়ি দিতে হয়।


রান্নার কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম আমরা প্রায় প্রতিদিনই বাড়ি থেকে বেরিয়েই সামনের দোকান থেকে পেয়ে যাই, ফলে আমাদের কাছে মুদিখানায় যাওয়ার ব্যাপারটা খুব একটা কষ্টসাধ্য বিষয় নয়। কিন্তু এই সামান্য মুদিখানার জিনিস আনতেই কানাডার ইউকনের বাসিন্দাদের প্রায় ৬০০ কিলোমিটার পাড়ি দিতে হয়। 

বাসস্থানের আশেপাশে নেই কোনো মুদিখানা, অতিক্রম করতে হয় দীর্ঘ পথ

কানাডার ইউকনে গুটিকয় লোকের বাস। এই ইউকনের ই অন্যতম অধিবাসী হলেন কানাডার নিউট্রিশন কোচ সিনিড মেডার। জানা যাচ্ছে এই গ্রসারি আইটেম কেনার জন্য ৭-৮ সপ্তাহ পর পরই তাঁকে যেতে হয় ৫৪৪ কিমি দূরের গ্রসারি শপে। এটিই তাঁর বাসস্থানের সব চেয়ে কাছের মুদির দোকান।

কানাডার নিউট্রিশন কোচ সিনিড মেডার
কানাডার নিউট্রিশন কোচ সিনিড মেডার

এই অঞ্চলের রাস্তাঘাট অত্যন্ত দুর্গম

এই যাত্রাপথে কোনো রকম টেলিকম সার্ভিস পাওয়া যায় না। এমনকি রাস্তার মধ্যে গাড়ি খারাপ হয়ে গেলেও কাউকে খবর দেওয়ার কোন উপায় থাকে না। জনমানব বিচ্ছিন্নতা ই এই দুর্গম পথের নিত্যসঙ্গী। এই এলাকার খামখেয়ালি আবহাওয়াও এই যাত্রাকে আরও বিপজ্জনক করে তোলে। শীতকালে এই পথের অবস্থা ভয়ঙ্কর হয়ে দাঁড়ায়। 

জনমানবহীন দুর্গম রাস্তা
জনমানবহীন দুর্গম রাস্তা

জানা গেছে ৭-৮ সপ্তাহ পরপর সিনিড যখন গ্রসারি শপে আসেন তখন একবারে তিনি ১,০০০ ডলারের জিনিসপত্র কেনাকাটা করে নেন। এপ্রসঙ্গে সিনিড জানিয়েছেন, তিনি ক্যানড এবং ফ্রোজেন ফুডই বেশি কেনেন কারণ তিনি যেখানে থাকেন সেই আবহাওয়ায় তাজা শাকসবজি বা ফলমূল বেশি দিন ভালো থাকে না।


telegram channel Viral News on Telegram