বাংলার জন্য বিরাট সুখবর! মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লিতে সফরকালেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ফোন রাজ্যের মন্ত্রীকে

Wednesday, December 7 2022, 4:17 pm
highlightKey Highlights

মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি সফরকালেই ১০০ দিনের কাজের টাকা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফোন। কেন্দ্রীয় গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রীর ফোন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদারকে।


রাজ্য কি শীঘ্রই পেতে চলেছে ১০০ দিনের কাজের টাকা? অন্তত তেমনটাই আশ্বাস কেন্দ্রীয় গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরাজ সিং দিলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদারকে। সূত্রের খবর কেন্দ্রীয় গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরাজ সিং ফোন করেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদারকে। ফোন করে তিনি আশ্বস্ত করেন ১০০ দিনের কাজের টাকা রাজ্য দ্রুত পাবে। কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী ফোন করে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী কে বলেন " আপনারা ১০০ দিনের কাজের টাকা পেয়ে যাবেন। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি।"

পাশাপাশি ফোন করে এও বলেন "আমরা আশা করি আপনারা খুব ভালো কাজ করবেন।" প্রসঙ্গত ১০০ দিনের কাজের টাকা কেন্দ্রের থেকে এখনো পাইনি রাজ্য।

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রকের সঙ্গে রাজ্য বৈঠকও করেছে ১০০ দিনের কাজের টাকা নিয়ে। শুধু তাই নয়, ১০০ দিনের কাজের টাকা নিয়ে কেন্দ্রের তরফে যা যা ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে তা দেওয়া হয়েছে বলে ও রাজ্যের দাবি। প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে একশো দিনের কাজের টাকা বাবদ বলেই রাজ্যের দাবী। তবে রাজ্যের বিরোধী দলের নেতা ১০০ দিনের কাজের টাকা নিয়ে যে নালিশ জানিয়েছে তা নিয়েও পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদারকে ফোনে বলেন কেন্দ্রীয় গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রী বলেই সূত্রের খবর। উত্তর অবশ্য পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার জানিয়ে দেন অভিযোগগুলি পাঠালেই তার উত্তর দিয়ে দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনা ও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার টাকা কেন্দ্র বরাদ্দ করেছে রাজ্যকে। টাকা বরাদ্দ করার পাশাপাশি রাজ্যকে কয়েক দফা শর্তও দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। ইতিমধ্যেই রাজ্য প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনা ও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার কাজও শুরু করে দিয়েছে। রাজ্যের পঞ্চায়েত ভোটের আগে ১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা এলে অনেকটাই সুরাহা হবে বলেই মনে করছে প্রশাসনিক মহল। এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার বলেন "আমি কেন্দ্রীয় গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানিয়ে ফোন করেছিলাম। সেই সময় ১০০ দিনের কাজের টাকা নিয়ে কথা হয়েছে।"




পিডিএফ ডাউনলোড | Print or Download PDF File