Vishwakarma Scheme | স্বল্প সুদে লক্ষাধিক টাকার ঋণ! মিলবে বিশেষ পরিচয় পত্র-সহ আরও সুবিধা!

Friday, December 15 2023, 11:27 am
highlightKey Highlights

স্বাধীনতা দিবসের দিন 'প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা; প্রকল্পের ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রথম পর্যায়েই ১ লক্ষ টাকার আর্থিক সাহায্য পাওয়া যাবে। ভর্তুকি-সহ সুদের হার পড়বে মাত্র ৫ শতাংশ। রয়েছে আরও সুবিধা।


লালকেল্লায় (Red Fort) স্বাধীনতা দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে দেশবাসীর জন্য বড় ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Prime Minister Narendra Modi)। লোকসভা নির্বাচনের আগে (Lok Sabha Elections 2024) 'প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা প্রকল্পে'র (Vishwakarma Scheme) ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী। জানা গিয়েছে, এই প্রকল্পের জন্য মোট ১৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। প্রধানমন্ত্রী মোদির আশা, এই প্রকল্পের দ্বারা কয়েক লাখ মানুষ উপকৃত হবেন। জানা গিয়েছে, এই যোজনাটি আগামী মাস থেকে ১৫,০০০ কোটি টাকা দিয়ে শুরু করা হবে।

স্বাধীনতা দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে দেশবাসীর জন্য বড় ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি 
স্বাধীনতা দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে দেশবাসীর জন্য বড় ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি 

পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্প কী? । What is PM Vishwakarma Scheme?

পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পের আওতায় কারু এবং হস্তশিল্পীরা উপকৃত হবেন বলে জানা গিয়েছে। সঙ্গে পিএম বিশ্বকর্মা শংসাপত্র প্রদান করে স্বীকৃতিও দেওয়া হবে তাঁদের। এই শিল্পীরা পাবেন পরিচয়পত্রও। জানা গিয়েছে প্রথম পর্যায়ে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা অর্থ সাহায্য পাবেন, এরপর দ্বিতীয় দফায় সর্বোচ্চ ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অর্থ সাহায্য পাবেন। ভর্তুকি-সহ সুদের হার পড়বে মাত্র ৫ শতাংশ। এই প্রকল্পে দক্ষতা বাড়বে শিল্পীদের, দরকারে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম কিনতে পারবেন, ডিজিটাল লেনদেনও করতে পারবেন শিল্পীরা।

 'প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা প্রকল্পে'র ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী
 'প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা প্রকল্পে'র ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী

কারা পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পের সুবিধা পাবেন? । Who Will Get Benefit of PM Vishwakarma Scheme?

এখনও পর্যন্ত যে তথ্য মিলেছে, সেই অনুযায়ী, 'পিএম বিশ্বকর্মা' প্রকল্পের সুবিধা পাবেন আওতায় নৌকা তৈরি করেন যাঁরা, লোহার কাজ করেন যাঁরা, তালা তৈরি এবং মেরামতির সঙ্গে যুক্ত যাঁরা। পাশাপাশি স্বর্ণকার, মৃৎশিল্পী, ভাস্করশিল্পী, কাঠমিস্ত্রি, লোহারমিস্ত্রি, কুমোর, জুতোর মিস্ত্রি, চর্মশিল্পী, রাজমিস্ত্রি-সহ নানা পেশার সঙ্গে যুক্ত শিল্পীরা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। তবে পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পের জন্য কীভাবে কোথায় নাম নথিভুক্ত করা যাবে, সেই বিষয়ে কোনও তথ্য প্রকাশ করেননি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পের আওতায় কারু এবং হস্তশিল্পীরা উপকৃত হবেন
পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পের আওতায় কারু এবং হস্তশিল্পীরা উপকৃত হবেন

পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পে কী কী সুবিধা পাবেন? । What are the Benefits of PM Vishwakarma Scheme?

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণেই নতুন স্কিমের  বিষয়ে জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, দরিদ্র দেশবাসীর জন্য সহজ শর্তে ঋণের ব্যবস্থা করবে সরকার। কারিগরদের কথা মাথায় রেখেই তৈরি হবে বিশ্বকর্মা স্কিম। জানা গিয়েছে, আগামী ১৭ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পুজোর দিনেই এই প্রকল্পের উদ্বোধন হতে পারে বলে। দেখে নিন এই প্রকল্পে কী কী সুবিধা পাওয়া যাবে।

পিএম বিশ্বকর্মা' প্রকল্পে মোট ১৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার
পিএম বিশ্বকর্মা' প্রকল্পে মোট ১৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার
  • পিএম বিশ্বকর্মা' প্রকল্পে মোট ১৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার (Central Government)। আগামী পাঁচ বছর অর্থাৎ ২০২৮ সাল পর্যন্ত আপাতত এই বরাদ্দ থাকবে।
  • এই প্রকল্পের আওতায় কারুশিল্পী এবং হস্তশিল্পের সঙ্গে যুক্ত কারিগররা ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। এর জন্য তাদের কিছু বন্ধক রাখতে হবে না। এমনকি তারা সুদের হারেও পাবেন ভর্তুকি।
মাত্র ৫ শতাংশ সুদে মোট তিন লক্ষ টাকা ঋণ দেওয়া হবে কারিগরদের
মাত্র ৫ শতাংশ সুদে মোট তিন লক্ষ টাকা ঋণ দেওয়া হবে কারিগরদের
  • পাশাপাশি, মাত্র ৫ শতাংশ সুদে মোট তিন লক্ষ টাকা ঋণ দেওয়া হবে কারিগরদের। প্রথম দফায় দেওয়া হবে ১ লক্ষ টাকা। পরের দফায় আরও ২ লক্ষ টাকা ঋণ দেওয়া হবে কারিগরদের। জানা গিয়েছে, ১৮ প্রকার কারিগরদের এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
  •  কারিগরদের জন্য প্রশিক্ষণ ও তাঁদের কাজের ক্ষেত্রে নানা সুযোগসুবিধাও দেবে সরকার। প্রাথমিকভাবে ১৮ ক্ষেত্রের কারিগরদের এই প্রকল্পের আওতায় আনা হবে।
প্রাথমিকভাবে ১৮ ক্ষেত্রের কারিগরদের এই প্রকল্পের আওতায় আনা হবে
প্রাথমিকভাবে ১৮ ক্ষেত্রের কারিগরদের এই প্রকল্পের আওতায় আনা হবে
  •  পিএম বিশ্বকর্মা স্কিমের আওতায় থাকা কারিগরদের জন্য বিশেষ পরিচয়পত্র থাকবে।
  • ডিজিটাল লেনদেনের মাধ্যমে যেন নিজেদের কাজের পরিধি বাড়াতে পারেন সেই জন্য বিশেষ উৎসাহ ভাতা দেওয়া হবে এই কারিগরদের।
বাজেটে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এই বিশ্বকর্মা যোজনার বিষয়ে জানিয়েছিলেন
বাজেটে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এই বিশ্বকর্মা যোজনার বিষয়ে জানিয়েছিলেন

উল্লেখ্য, বাজেটে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Finance Minister Nirmala Sitharaman) এই বিশ্বকর্মা যোজনার বিষয়ে জানিয়েছিলেন। এরপর স্বাধীনতা দিবসের ভাষণেও এই বিষয়ে ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর আজ অর্থাৎ বুধবার সরকারি অনুমোদন পেল 'প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা' তথা 'পিএম বিশ্বকর্মা' প্রকল্পে। প্রধানমন্ত্রী মোদির নেতৃত্বে এদিন মন্ত্রিসভার অর্থনৈতিক কমিটির বৈঠক বসে। সেখানেই স্বল্প সুদের এই ঋণ প্রকল্পে অনুমোদন মিলেছে।

 'পিএম-ইবাস সেবা' প্রকল্পেও সবুজ সঙ্কেত মিলেছে 
 'পিএম-ইবাস সেবা' প্রকল্পেও সবুজ সঙ্কেত মিলেছে 

 পাশাপাশি এদিনের বৈঠকে 'পিএম-ইবাস সেবা' (PM-Ebus Seva) প্রকল্পেও সবুজ সঙ্কেত মিলেছে বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, এই প্রকল্পের আওতায় আরও ১০ হাজার ই-বাস (Ebus) পরিবহণ ক্ষেত্রে যুক্ত করা হবে।  আপাতত আগামী ১০ বছরের জন্য এই পরিষেবাপ্রদানের লক্ষ্য রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর (Union Minister Anurag Thakur)। তিনি জানান, দেশের ১৬৯টি শহরের পরিবহণ ব্যবস্থায় ১০ হাজার ই-বাস সংযুক্ত করা হবে। গ্রিন আরবান মবিলিটি ইনিশিয়েটিভের (Green Urban Mobility Initiative) আওতায় ১৮১টি শহরের পরিকাঠামোর উন্নয়ন করার লক্ষ্য কেন্দ্র সরকারের। মোট মিলিয়ে ১০ হাজার ই-বাস চালু করতে ৫৭ হাজার ৬১৩ কোটি টাকা খরচ পড়বে বলে অনুমান। জানা গিয়েছে, এই পরিমাণ অর্থের মধ্যে ২০ হাজার কোটি টাকা দেবে কেন্দ্র। সরকারি এবং বেসরকারি বাস মালিকদের যৌথ উদ্যোগে চালু হবে এই পরিষেবা। ফলে আশা করা যাচ্ছে ৪৫০০০ থেকে ৫৫০০০ কর্মসংস্থান হবে।




পিডিএফ ডাউনলোড | Print or Download PDF File