১০০ টি প্রয়োজনীয় ফ্যাক্ট| 100 interesting life hack in Bengali

Thursday, March 14 2024, 5:54 am
highlightKey Highlights

লাইফ হ্যাকস হ'ল কিছু চতুর টিপস , কৌশল বা শর্টকাট যা সামান্য কাজকে অনেক সহজ করে তোলে। আপনি এগুলি ব্যবহার করে সাধারণ সমস্যার বেশ কার্যকরী ফল পেতে পারেন। এটি একধরনের সৃজনশীল ও উন্নত মানের সমাধান স্বরূপ ।


সত্যিকারের লাইফ হ্যাক খুবই সাধারণ এবং সহজ একটি প্রক্রিয়া। নিম্নে উল্লেখিত হল সেরকমই কিছু কার্যকরি ১০০ টি life hacks যা অবশ্যই আপনাকে অনেক ঘরোয়া ও দৈনন্দিন সমস্যার সমাধান করে দেবে।

কিছু মজার তথ্য | Some fun facts

1.পেঁয়াজ কাটলে যদি চোখের থেকে জল পড়ে তখন পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে বেশ কিছুক্ষণ জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। তাহলে পেঁয়াজ কাটার সময় আর চোখ জ্বালা করবে না।

2.চুলের যত্ন নিয়ে চিন্তায় আছেন? ঘরে শ্যাম্পু শেষ হয়ে গেছে? তাহলে চুলের পরিচর্যা করার জন্যে নিজেই বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারেন সেরাম শ্যাম্পু। দুটো ডিমের সাদা অংশ বের করে নিতে হবে, তার মধ্যে দুই টেবিল চামচ রেড়ির তেল মেশাতে হবে পুরো চুলে ঘণ্টাখানেক লাগিয়ে রাখার পর হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেললে ই দেখবেন খুশকিমুক্ত ঝলমলে চুল হয়ে গেছে আপনার ও।

3. কেক বা পুডিং তৈরি করার পর প্রায়ই বেকিং প্যানের মধ্যে তা আটকে থাকে। এমন হলে সুতির কাপড় গরম জলে ডুবিয়ে বেকিং প্যানের নিচের অংশে কিছু সময়ের জন্য মুড়ে রাখলে খুব সহজেই প্যানের মধ্য থেকে কেক বেরিয়ে আসে।

4. যদি পাউডারের দুধ তাড়াতাড়ি গুলতে চান তাহলে শুকনাে ডিশে পাউডার দুধের সাথে সামান্য চিনি মিশিয়ে নিন ; তারপর ঠান্ডা অথবা গরম জল দিয়ে দুধ সহজেই গােলা যাবে।

5. লঙ্কা কাটা বা বাটার পরে হাতে অসম্ভব জ্বলন হয়ে থাকে। হাতে যদি ঠান্ডা দুধের সর লাগানো যায় তাহলে জ্বালা কমে যাবে বা ঠান্ডা দুধ দিয়েও হাত ধুয়ে নেয়া যায়। তাছাড়া হাত পুড়ে গেলেও সেই মুহূর্তে যদি ঠান্ডা দুধ দেওয়া যায় তাহলে আর ফোসকা পড়বে না, সাথে জ্বালাও হ্রাস পাবে।

আরও পড়ুন : Ajker bangla khabar

Chinese Mango Pudding
Chinese Mango Pudding

6. রান্না করা তরকারীতে কতটা নুন হয়েছে তা চাখার জন্য তাড়াহুড়াে করে ঝােল মুখে নিলে জিভ পুড়ে যায় অনেক সময়। সঙ্গে সঙ্গে যদি আধা চা চামচ পরিমাণ চিনি জিভের পােড়া জায়গায় রেখে একটু একটু করে খেয়ে নেওয়া যায় তাহলে জিভের জ্বালা পােড়া কম হবে।

7. চিনির পাত্র অনেক সময় ঢাকা দিয়ে রাখলেও পিঁপড়ের উৎপাত হয় আর সেই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দু-তিনটে লবঙ্গ রেখে দিন পাত্রে, তাতে পিঁপড়ে আর আসবেনা।

8.বর্ষাকালে আবহাওয়ার জন্য বেশির ভাগ সময় দেশলাই বাক্সের বারুদ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। বাক্সের ভিতরে যদি সামান্য শুকনো চাল রেখে দেওয়া যায় তাহলে বারুদ ভাল থাকবে।

9. ফ্রিজের ভিতর মোমবাতি রাখলে মোমবাতির কম ক্ষয় হবে।

10. ভাত গলে যাওয়া প্রত্যেক বাড়িতে সাধারণ একটি সমস্যা। তাই ভাত সিদ্ধ হওয়ার কিছুক্ষণ আগে যদি কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও এক চামচ তেল দিয়ে দেওয়া যায় তাহলে ভাত আর গলবে না।

11.অনেকক্ষণ ধরে ছোলা সিদ্ধ করার পরেও তা কিছু কিছু সময়ে শক্ত থেকে যায়। তাই ছোলা সিদ্ধ করার সময় যদি এক চিমটে খাবার সোডা দিয়ে দেওয়া যায় তাহলে ছোলা নরম হবে।

12.কাঁচের বাসন মাজার সময় অনেক সময়ই ডিশ ওয়াশার দিয়ে ও ভালোভাবে পরিষ্কার হয় না। যে জলে চাল ধুয়েছেন সেই জলে যদি বাসনগুলি ডুবিয়ে রাখেন তাহলে সেগুলি ঝকঝকে হবে।

13. ভিজে কাপড়ে যদি কলা মুড়িয়ে ফ্রিজে রাখা যায় তাহলে কলার খোসা কালো হবে না।

14. লেবু কাটার পর তার খোসা ফেলে না দিয়ে তা যদি কাপড় কাচার সাবানের সঙ্গে খোসাগুলির ছোট ছোট টুকরো করে মিশিয়ে দেওয়া যায়; তা হলে কাচার সময় সাবান ও কম লাগে আর কাপড়ও পরিষ্কার থাকে।

15.কোল্ড ড্রিঙ্কের ঝাঁঝ বেরিয়ে গেলে তা দিয়ে বাড়ির মেঝে, রান্না ঘরের তেলতেলে দেওয়াল ও স্ল্যাব পরিষ্কার করলে তা ঝকঝকে চকচকে লাগবে ।

আজব ফ্যাক্ট | Weird fact

16.খাবার পুড়ে গেলে অনেক সময় তার দাগ ফ্রাইং প্যানে লেগে যায় আর তা তুলতে খুব সমস্যা হয়। অল্প কিছুটা পেঁয়াজ কুচিয়ে নিন আর ফ্রাইং প্যানে দিয়ে তারপর গরম জল ঢেলে দিলে দেখবেন দাগ চলে গেছে।

17.অসাবধানবশত যদি শরীরের কোনও অংশ পুড়ে যায় তাহলে সেই পোড়া জায়গায় পাকা কলা চটকে লাগিয়ে দিলে জ্বালা কমে যাবে।

18. পোড়া মাটির জিনিস সবসময় পরিষ্কার রাখতে হলে সেগুলির ওপর নেলপালিশ লাগিয়ে দেখুন। অবশ্যই স্বাভাবিক(nude) রঙের নেলপালিশ। এরফলে রং স্বাভাবিকভাবে বজায় থাকবে আর তা নোংরা ও হবে না।

19. বাথরুমের টাইলস্ এ নোংরা বা দাগ পড়ে গেছে? ডিটারজেন্ট নিন আর সাথে সামান্য ফিনাইল ও লেবুর রস মেশান আর তা বাথরুমে টালির উপর ঘষুন। বাথরুমের টাইলস্ একেবারে চকচকে হয়ে যাবে।

20. যদি নিয়ম করে ফল চিবিয়ে খান তাহলে দাঁত ভালো থাকে।

21. রান্নাঘরে আরশোলা? আপনার মশলা রাখার তাকে একটা ছোট কাপড়ের পুটুলির মধ্যে কিছুটা কালো জিরা আর শুকনা লঙ্কা বেঁধে রাখুন! দেখবেন অতি সহজেই আরশোলা চলে যাবে।

Gel nail Polish
Gel nail Polish

22. কাঠের আলমারী বা খাটের উপর বাচ্চারা খুব স্বাভাবিকভাবেই আঁকিঝুকি করে থাকে কিন্তু তা দেখতে মোটেও ভালো লাগে না। তবে কেরোসিন তেল দিলে সেই দাগ ছোপ সহজেই ওঠানো যাবে।

23. আপনি যদি প্রতিদিন ১৫০ গ্রাম টক দই খান তাহলে বার্ধক্য দুর হয়।

24.রসুনের কোয়া ছাড়াতে সমস্যা হলে কোয়াগুলো আলাদা করে পনেরো সেকেন্ড ওভেনে গরম করে নিন। তারপর খুব সহজেই খোসা ছাড়িয়ে নিন ।

25.ছুরি বা কাঁচি থেকে মরচের দাগ তোলার জন্য ছুরিটি ভিনেগারে বেশ কিছুক্ষণ চুবিয়ে রাখুন আর তারপর আধ ঘণ্টা ফুটিয়ে নিলেই হবে।

26.যদি আপনার কম্পিউটারের কি-বোর্ড বা মাউসে ময়লা জমে তাহলে তুলার প্যাডে কয়েক ফোঁটা নেল রিমুভার দিয়ে ময়লার ওপর বুলিয়ে নিলে সব ময়লা ঠিক সহজেই উঠে যাবে ।

27. বাসনের স্টিকার সহজে তুলতে হলে তা হাত দিয়ে না তুলে একপাশে মোমবাতি ধরে থাকুন আর তারপর মোমবাতি টি সরিয়ে এককোণ থেকে অনায়াসে স্টিকার তুলে ফেলুন।

28.প্রেশার কুকারের হলদেটে দাগ তুলতে কুকারে লেবুর রস ও লেবু একসঙ্গে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিলেই আর দাগ থাকবে না। ভিনিগার দিয়ে যদি প্রেসার কুকারটি ফোটান তাহলেও ও আর দাগ থাকবে না।

29. প্লাস্টিকের জিনিসে অনেক সময় মরচের দাগ পড়ে । সেই ক্ষেত্রে তারপিন তেলের সঙ্গে নুন মিশিয়ে ঘষলে দাগ নিমেষেই উঠে যাবে।

30. যদি কাপড়ের কালো দাগ তুলতে হয় তাহলে দাগের ওপর কেরোসিন ঘষুন আর তার সাথে এক টুকরা লেবু ও ঘষে দিতে পারেন; আর তারপর সাবান দিয়ে কাপড় কেচে রোদে মেলে দিন।

31. .পিতলের কালচে দাগ তুলতে ময়দা, নুন ও ভিনিগারের পেস্ট বানিয়ে নিন আর তারপরে পিতলের কালো দাগের ওপর ভালো ভাবে মাখিয়ে দিন। ১০ মিনিট রাখার পর নরম কাপড় দিয়ে তা ঘষে তুলে ফেলুন। পিতল একেবারে চকচকে করবে।

32. রুপার গয়না যদি কালো হয়ে যায় তাহলে আপনি একটি পাত্রে গয়না রাখুন আর তার মধ্যে জল দিন আর কয়েক টুকরো আলু দিন। এরপর ১০ মিনিট ফোটান আর তারপর তা নামিয়ে ঠাণ্ডা হয়ে গেলে জল থেকে তুলে নরম কাপড় দিয়ে গয়নাটি ঘষে নিন।

আশ্চর্যজনক ঘটনা | Amazing facts

32.কাঁচালঙ্কার বোঁটা ফেলে তা জল শুকিয়ে নিয়ে যদি কাপড়ের ব্যাগ বা কাগজের ব্যাগ এ সঠিক ভাবে সংরক্ষণ করা যায় তাহলে তা বেশী দিন তরতাজা থাকবে ।

33. শাক বা ধনে পাতা বাজার থেকে আনার পর পরিষ্কার করে বেছে নিয়ে শুকনো পলিপ্যাক বা কনটেইনারে রাখলে ভালো ।তবে যদি কাপড়ের ব্যাগ বা কাগজে মুড়িয়ে রাখা যায় তাহলে তা বেশি সময় ভালো থাকে ।

34. মনে রাখবেন মাছ ও মাংস রান্না করার জন্য যখন সেগুলিকে রেফ্রিজারেটর থেকে বের করেন , তার বরফ গলে যাওয়ার পর বেশিক্ষণ বাইরে রাখা উচিত নয় কারণ গরমে সেগুলো নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

35.দোকান থেকে আনা চিকেন ফ্রাই, চিকেন রোল ইত্যাদি খাবার অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলে মুড়িয়ে নিলে খাবারগুলি নষ্ট হয় না।

36. অনেক সময় কাঁচালঙ্কা কাটার পর ভুল করে সেই হাত চোখে লাগলে তো আর রক্ষে নেই !! আবার অনেক সময় রান্না করতে গিয়ে মরিচের ছিটে এসে চোখে পড়লে চোখ জ্বালা করে । সেই মুহূর্তেই যদি এক চিমটে নুন খাওয়া যায় তাহলে সাথে সাথে চোখের জ্বালা কমে যাবে। তারপরই চোখ ভাল করে একবার ধুয়ে নেবেন।

Lime-Prawn
Lime-Prawn

37. বেগুন ও কাঁচকলা কেটে রাখলে দেখবেন যে সেগুলি কালো হয়ে গেছে। জলে সামান্য দই দিয়ে তার ভেতরে কাটা কাঁচকলা ও বেগুন ডুবিয়ে রাখলে আর কালো হবে না।

38. পেঁয়াজ-রসুন কাটার পর হাতের গন্ধ দূর করতে সামান্য লেবুর রস বা শর্ষের তেল মাখুন আর তারপর হাত ধুয়ে নিন।

39. মাছে নুন , হলুদ ও সামান্য ভিনিগার দিয়ে ফ্রিজে যদি তা রাখা হয় তাহলে আর বাসি গন্ধ হবে না ।

40. চিংড়ি মাছের গন্ধ যারা সহ্য করতে পারে না তারা চিংড়ি মাছ রান্না করার আধঘণ্টা আগে লেবুর রস ও সামান্য নুন মাখিয়ে রাখতে পারে, আর তারপরে পরিষ্কার করে ধুয়ে রান্না করলে আর আঁশটে গন্ধ বেরোবে না ।

41.আচার শেষ হয়ে গেলে বোতল পরিষ্কার করার পরও গন্ধ সহজে যেতে চায় না । দেশলাই কাঠি জ্বালিয়ে বোতলে ফেলে ঢাকনা বন্ধ করে কিছুক্ষণ রেখে দিয়ে সাবান-জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন, সব গন্ধ চলে যাবে।

42.কাঁচা মুগডাল ভেজে জল দিয়ে ধুয়ে ভিজিয়ে রাখলে ডালের রং কালো হবে না। ধুয়ে রান্না করার পর ডালটাকে দেখতে ও উজ্জ্বল লাগবে আর তাড়াতাড়ি সিদ্ধ হয়ে চালের সাথে মিশে যাবে।

43. অনেক দিন ধরে যদি আপনি আলু স্টোর করে বা জমিয়ে রাখতে চান তাহলে আলুর প্যাকেটে একটা আপেল রাখুন, আলুতে চারা গজাতে দেবে না।

44. পেঁয়াজ কাটার সময় যদি চুইংগাম চিবতে থাকেন তাহলে চোখ আর জ্বালা করবে না।

45. মাছ ভাজার সময়ে কড়াই তে তেল গরম করা হয়ে গেলে মাছের ওপর সামান্য নুন ছিটিয়ে দিলে তেলের ছিটা গায়ে আসবে না।

পৃথিবীর অজানা তথ্য | Unknown facts of the world

46. ডাল রান্নার সময় বেশি করে জল দিয়ে অনেকক্ষণ ধরে জ্বাল দিলে ডালের স্বাদ বহুগুণ বেড়ে যায়।

47.মাংস তাড়াতাড়ি সিদ্ধ করতে হলে খোসা সমেত এক টুকরো কাঁচা পেঁপে দিয়ে দিন।

48.মাংস রান্নার শেষে তা নামানোর আগে বেরেস্তা অর্থাৎ পেঁয়াজ কুচি ভাজা ছড়িয়ে দিলে মাংসের স্বাদ বহুগুণ বেড়ে যাবে ।

49. ডিম সিদ্ধ করার সময় জলে সামান্য নুন দিয়ে দিলে ডিম ফাটে না আর খেতেও সুস্বাদু হয়।

50. রান্নায় খাদ্যের মান সঠিক রাখতে যতটুকু সম্ভব সবজি গুলি বড় বড় টুকরা করে কাটুন।

51.রান্নায় গরম জল ব্যবহার করলে তাড়াতাড়ি রান্না হয়ে যাবে।

52. ফ্রিজের মধ্যেকার আঁশটে গন্ধ দূর করতে ফ্রিজের ভিতরে এক টুকরো কাঠ কয়লা রেখে দিলে আঁশটে গন্ধ আর থাকবে না।

আরও পড়ুন : WB Matirkatha Scheme

পিঁপড়ার কবল থেকে চিনি বাঁচানোর সহজ উপায়
পিঁপড়ার কবল থেকে চিনি বাঁচানোর সহজ উপায়

53.চিনিতে পিঁপড়া ধরলে চিনির পাত্রে কয়েকটি লবঙ্গ রাখুন, পিঁপড়া ছেড়ে যাবে।

54.তরকারিতে যদি নুন বেশি হয়ে যায় তাহলে সামান্য টক অথবা সামান্য চিনি দিন, কিছুটা হলেও লবণাক্ত ভাব টা কম হবে। অনেক সময়ে ছোট একটি আলু কেটে দিলেও এই সমস্যা দূর হতে পারে ।

55.ভাতের মাড়ের জল বাসন ধোয়ার সময় ব্যবহার করলে কাঁচ ও স্টেনলেস স্টিলের বাসন ঝকঝক করবে।

56. রান্না করার সময় যদি হাতে হলুদের দাগে ভরে যায় তাহলে এক টুকরো লেবু ভালো করে হাতের তালুতে ঘষে নিন আর তারপর ধুয়ে ফেলুন। হলুদের দাগ আর থাকবে না।

57.কচু কাটার পর বেশির ভাগ সময়ই হাত কালচে হয়ে যায় আর চুলকাতে থাকে। আপনি যদি কিছুটা নুন মেখে উনুনের তাপে হাতটা কিছুক্ষণ ধরে রাখেন তাহলে সেই চুলকানো বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

58.লেবু কাটার কিছুক্ষণ পর তা শুকিয়ে যায়। কাটা লেবু আবার অনেকে ফ্রিজে রাখতে চান না । সেক্ষেত্রে লেবুর ওপর সামান্য নারিকেল তেল মাখিয়ে খোলা জায়গায় রেখে দিন. লেবু তরতাজা থাকবে।

59. অনেক দিন ধরে হিং কে তরতাজা রাখতে গেলে এর সঙ্গে কয়েকটা কাঁচা লঙ্কা রাখতে পারেন। দুধে ভিজিয়ে রাখলেও তা তরতাজা থাকবে।

60. আঠার টিউব ফ্রিজে রাখলে অনেক দিন চলবে আর সহজে তা শুকাবে না।

61. সাবান ব্যবহার করার পর যখন ছোট টুকরা হয়ে যায় তখন তা ফেলে না দিয়ে পুরনো মোজায় ভরে ড্রয়ারে বা আলমারিতে রাখতে পারেন। ভ্যাপসা গন্ধ চলে যাবে আর ফ্রেশনারও লাগবে না।

62.জুতার কালিতে দুই ফোঁটা অলিভ অয়েল দিয়ে রাখলে তা অনেক দিন ভালো থাকবে আর শুকিয়েও যাবে না।

63 চামড়ার জুতাতে যদি ক্যাস্টার অয়েল লাগানো যায় আর সোল এ বার্নিশ (ম্যাট) লাগিয়ে রেখে তা যদি শুকিয়ে নেওয়া যায় তাহলে জুতোটি বৃষ্টিতে ভিজলেও নষ্ট হবে না।

64. বেগুন পোড়ার পর বেগুনের খোসা তোলার ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে তা জলতে দুই মিনিট ভিজিয়ে রাখতে পারেন এবং তারপর তা তুলে নিয়ে জল ঝরিয়ে খোসা ছাড়ান; দেখবেন অতি সহজেই খোসা উঠে যাবে।

65. ফুলকপি পরিষ্কার করতে গেলে সবজিটি কাটার পর ভিনিগার মেশানো জলে ভিজিয়ে রাখতে পারেন কয়েক মিনিট। তারপর তুলে নিলে দেখা যাবে যে সব পোকা আর ময়লা বেরিয়ে গেছে।

বিজ্ঞানের আজব তথ্য | Strange facts about science

66.দই যদি খুব টক হয়ে যায় তা পাতলা কাপড়ে ঢেলে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। তবে দইয়ের জলটা ফেলে না দিয়ে তা ময়দা মাখার সময় জলের পরিবর্তে ব্যবহার করা যেতে পারে।

67. জামায় লাগা কফির দাগ তুলতে হলে কাপড় ৩০ মিনিট জলেতে ভিজিয়ে রাখতে হবে আর তারপর কাপড় শুকিয়ে ড্রাইওয়াশ করে নিলেই সব পরিষ্কার ।

68. যদি জামাকাপড়ে কখনো সস পড়ে যায় তাহলে ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এরপর হালকা গরম জল দিয়ে তা আবার ধুয়ে নিন।

69.যদি কার্পেটের ওপর সস পড়ে যায় তাহলে দুই কাপ অল্প গরম জলের মধ্যে এক টেবিল চামচ লিকুইড হ্যান্ডওয়াশ মিশিয়ে তারপর একটি পরিষ্কার কাপড় ওই মিশ্রণে ডুবিয়ে সসের জায়গাটিতে মুছুন। দাগ টি যদি গাঢ় হয় এবং না উঠতে চায় তাহলে এক টেবিল চামচ অ্যামোনিয়ার সঙ্গে দুই কাপ কুসুম গরম জল মিশিয়ে ওই মিশ্রণ দিয়ে সেই জায়গাটি পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলুন আর তারপর আবার ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন; দাগ নিশ্চয়ই চলে যাবে।

70.কোথাও যদি নেলপলিশের দাগ লেগে যায় তাহলে তার ওপর নেলপলিশ রিমুভার লাগিয়ে জায়গাটা ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপর এক চা চামচ পি-এইচ ব্যালান্সড ডিটারজেন্ট পাউডার নিতে হবে ও এক কাপ গরম জলেতে তা মিশিয়ে কাপড় ডুবিয়ে নিয়ে পরিষ্কার জলে ধুয়ে ফেলতে হবে।

71.ফ্রিজের গায়ে যদি দাগ ধরে যায় তাহলে স্পঞ্জে টুথপেস্ট লাগিয়ে জায়গাটিতে ঘষুন। দাগ নিমেষেই উঠে যাবে।

72. বাড়ির জানালা, দরজার কাঁচ ঝকঝকে করে তোলার জন্য মিহি চকগুঁড়ার সাথে জল আর স্পিরিট অথবা কেরোসিন মিশিয়ে কিছুক্ষণ তা কাঁচের ওপর মাখিয়ে রাখতে হবে। পরে শুকিয়ে গেলে খবরের কাগজ দিয়ে মুছে নিলেই কাঁচ ঝকঝকে।

গরমে যেসব পোশাক পড়বেন 
গরমে যেসব পোশাক পড়বেন 

73. গরম পোশাক বা সিল্কের পোশাক ধোয়ার পর ইউক্যালিপটাস তেল মেশানো জলে তা ডুবিয়ে নিলে পোশাকগুলো পোকায় কাটার ভয় আর থাকবে না। জামাকাপড়ের ঔজ্জ্বল্য বাড়বে। যদি জামায় বমির দুর্গন্ধ থেকে যায়, তবে কাচার পর জলে আধ চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে তাতে জামাকাপড় ডুবিয়ে নেবেন। সব রকম দুর্গন্ধ দূর হবে।

74.ফ্লাস্কের ভেতরের অংশ ভালভাবে ধুতে গেলে ফ্লাস্কে গরম জল ভর্তি করে তাতে কয়েক টুকরো কাগজ ফেলে দিন। এক ঘন্টা পর ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিয়ে জল ফেলে দিলেই ভেতরের সব নোংরা নিমেষের মধ্যে পরিষ্কার হয়ে যাবে।

75.যদি পাটালী গুড় শক্ত রাখতে চান তাহলে সেই গুড়টি মুড়ির ভেতরে রাখুন।

76.আদা অনেকদিন ধরে টাটকা রাখার জন্য তা বালির ভেতর রেখে দিতে পারেন।

77.কমলা লেবুর খোসা শুকিয়ে তা গুঁড়ো করে রাখুন। যখন কেক বা পুডিং বানাবেন তখন সামান্য পরিমান দিলেই চমৎকার সুগন্ধ বের হবে।

78.লেবুর সমস্ত রস বের করতে হলে লেবু কাটার আগে অন্তত দশ সেকেন্ড গরম জলে রাখতে হবে ।

79.বাসি পাউরুটি শক্ত হয়ে গেলে তা হালকা ভেজা টিস্যুতে জড়িয়ে ২০ সেকেন্ড গরম করে নিলে তফাতটা সহজেই বুঝতে পারবেন।

80.ডাল বা ছোলা ভিজিয়ে রাখতে ভুলে গেলে তা এক ঘণ্টা গরম জলে বারো থেকে পনেরো মিনিট রেখে ঠান্ডা করে নিলে কাজ হয়ে যাবে ।

81.চিপস বা পাঁপড় নরম হয়ে গেলে সেগুলিকে টিস্যুতে ২০ সেকেন্ড জড়িয়ে গরম করে নিলে সেগুলি আবার মুচমুচে হয়ে যাবে ।

82.সবজির খোসা দ্রুত ছাড়াতে চাইলে মাইক্রোওয়েভে লো পাওয়ারে দুই থেকে তিন মিনিট গরম করে নিলে খোসা সহজেই ছাড়ানো যাবে।

অদ্ভুত কিছু ফ্যাক্ট  | Strange facts

83.বাসি শাকসবজি নিস্তেজ হয়ে গেলে দশ সেকেন্ড মাইক্রো ওভেনে গরম করে নিলে তা আবার তরতাজা হয়ে যাবে ।

84.ফ্রিজে ডিম সাজিয়ে রাখার সময় ডিমের সুচালো দিকটি নিচের দিকে রাখুন ;বেশিদিন তা ভালো থাকবে।

85.জামাকাপড়ে কালি লাগলে সেই স্থানে টুথপেস্ট লাগিয়ে শুকিয়ে নিন আর তারপর ধুয়ে ফেলুন ।

86.ইঁদুরের উপদ্রব হলে সেই স্থানে গোলমরিচ ছিটিয়ে রাখুন।

87.ঘরেতে পিঁপড়ের সমস্যা হলে তাদের আস্তানায় শশার খোসা ছড়িয়ে রাখুন।

88.সেদ্ধ আলু ছাড়াতে সমস্যা হলে তা দ্রুত ঠান্ডা জলে ভিজিয়ে নিন ।

89.অস্পষ্ট আয়নাকে ঝকঝকে করতে হলে তাকে স্পিরিট দিয়ে মুছে নিন।

90.সাদা কাপড়ে দাগ লাগলে সেই কাপড়টি কে গরম লেবু জলে দশ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন।

91.পোশাকে চুইংগাম আটকে গেলে পোশাকটি এক ঘণ্টা ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন ।

Hair care
Hair care

92.চুলে উজ্জ্বলতা আনতে গেলে চুলে এক চা চামচ ভিনিগার লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

93.কাঁচা আনারস কে তাড়াতাড়ি পাকাতে গেলে আনারসটির কাণ্ডটি কেটে নিয়ে তাকে উল্টে রেখে দিতে হবে।

94.গরম পুডিং বা কেক সহজেই কাটতে চাইলে প্রথমে ছুরিটিকে গরম জলে ধুয়ে নিতে হবে।

95.ডালিমের দানা সহজেই ছাড়াতে চাইলে ডালিমের উপরের অংশটি ফেলে দিয়ে ডালিমটিকে আড়াআড়ি দুবার কেটে উল্টো করে পাত্রে নিন।

96.টকজাতীয় ফল দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে চাইলে তাকে ফ্রিজে না রেখে সাধারণ তাপমাত্রায় রাখুন ।

97.ঝোলে যদি নুন বেশি হয় তাহলে একটি খোসা ছাড়ানো আলু তার মধ্যে ছেড়ে দিন ও কিছুক্ষণ রেখে দিন।

98.কলের মুখ পরিষ্কারের জন্য কলটি ভিনিগারের মধ্যে কুড়ি মিনিটের মতন ভিজিয়ে রেখে তারপর পরিষ্কার করতে হবে।

99.রাতের বেলায় তরমুজ খাওয়া একদম উচিত না ।এতে গ্যাসের সমস্যা বা ওজন বৃদ্ধির মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

100. দুশ্চিন্তা এবং নার্ভাসনেস কাটাতে কাঁঠাল একটি উপকারী ফল হিসেবে বিবেচিত হয়।

~~~~~~~~~

পরিশিষ্ট :

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~

নিত্যদিনের জীবনে প্রয়োজনীয় কিছু ঘরোয়া সমাধান আশা করি আপনাদের পছন্দ হয়েছে । জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে এই life hacks গুলোর কার্যকরিতা অনস্বীকার্য ।




পিডিএফ ডাউনলোড | Print or Download PDF File