পার্থ-কাণ্ডের জেরে মন্ত্রিসভা ভেঙে নতুন করে সাজাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী, দাবি তৃণমূলের অন্দরে

Saturday, July 23 2022, 3:37 pm
highlightKey Highlights

২০১৬ সালে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরে মন্ত্রিসভা থেকে কয়েকজনকে বাদ দেওয়ার পক্ষপাতী ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পার্থ-কাণ্ডের পর এখন তাই বিবেচনা করা হচ্ছে।


দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে এমন নেতাদের মন্ত্রিসভা থেকে বাদ দেওয়ার দাবি অনেক আগেই উঠেছিল তৃণমূলে। এখন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট গ্রেফতার করার পরে সেই পুরনো দাবি নতুন করে উঠতে শুরু করেছে। 

পার্থ চট্টপাধ্যায়ের মন্ত্রিত্ব এবং দলের মহাসচিব পদ কী আর থাকবে? শেষ কথা বলবেন তৃণমূলের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

শনিবার সকালে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতারের পর তৃণমূলের পক্ষ থেকে দুপুর পর্যন্ত নির্দিষ্ট কিছু জানানো হয়নি। কিন্তু পার্থের মন্ত্রিত্ব এবং দলের মহাসচিব পদ থাকবে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তৃণমূলের ভিতরে-বাইরে। সেই সঙ্গেই উঠছে ২০১৬ সালের প্রসঙ্গও।

শনিবার তৃণমূলের এক বিধায়ক বলেন, ‘‘অভিষেক অনেক আগেই কিছু নির্দিষ্ট কারণ দেখিয়ে দলের কয়েকজনকে মন্ত্রিসভা থেকে বাদ দেওয়ার কথা বলেছিলেন। পাশাপাশিই বলেছিলেন, ওই নেতাদের যাতে দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে না রাখা হয়। কিন্তু সেটা করা হয়নি। এখন সম্ভবত তারই ফল বোঝা যাচ্ছে।’’

শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগ অনেক দিন ধরেই সামলাতে হচ্ছে তৃণমূলকে। জবাবে বিরোধীদের পাল্টা আক্রমণের পথে হেঁটেছে শাসকশিবির। ওই দুর্নীতির বিষয়ে আদালত সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার পরেও দল নির্দিষ্ট অভিযোগে সওয়াল করতে পেরেছিল। কিন্তু নগদ ২১ কোটিরও বেশি টাকা উদ্ধারের মতো ঘটনা দলের মুখ বন্ধ করে দিয়েছে বলেও মনে করছেন পার্থ-কাণ্ডে ক্ষুব্ধ নেতারা।




পিডিএফ ডাউনলোড | Print or Download PDF File