WB Prochesta Prokolpo | প্রচেষ্টা প্রকল্প~ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এক অভিনব প্রয়াস

Tuesday, May 10 2022, 7:56 am
highlightKey Highlights

করোনা ভাইরাসের কারণে সমগ্র মানবজাতি বিশেষ করে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে প্রভূতভাবে পিছিয়ে পড়েছে । পশ্চিমবঙ্গ সরকার মানুষের সাহায্যের জন্য এবং তাদের দুর্দশা কিছুটা লাঘব করার উদ্দেশ্য নিয়ে শুরু করেছে প্রচেষ্টা প্রকল্প ।


ভূমিকা | Introduction of Prochesta Prokolpo

মহামারী কোভিড 19 এর প্রকোপে যাঁরা কাজ হারিয়েছেন তাঁদের সাহায্যের জন্য রাজ্য সরকার এক আভিনব প্রকল্পের ঘোষণা করেছে যার মাধ্যমে রাজ্য সরকার দিনমজুর বা শ্রমিকদেরকে ১০০০ টাকা করে অর্থ প্রদান করবে । রাজ্য সরকারের এই অভিনব উদ্যোগের ফলশ্রুতি ই হলো 'প্রচেষ্টা প্রকল্প'। 

প্রকল্পের উদ্দেশ্য | Purpose of Prochesta Prokolpo

প্রচেষ্টা প্রকল্প
প্রচেষ্টা প্রকল্প

করোনা ভাইরাসের কারণে সমগ্র মানবজাতি বিশেষ করে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে প্রভূতভাবে পিছিয়ে পড়েছে । পশ্চিমবঙ্গ সরকার মানুষের সাহায্যের জন্য এবং তাদের দুর্দশা কিছুটা লাঘব করার উদ্দেশ্য নিয়ে শুরু করেছে  এই প্রচেষ্টা প্রকল্প । এই প্রকল্পের দ্বারা পশ্চিমবঙ্গে বসবাসকারী যে সমস্ত অসংগঠিত শ্রমিক রয়েছেন এবং যাদের সামাজিক সুরক্ষা (SSY) কার্ড নেই তাদের  ব্যাঙ্কের একাউন্টে পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা সরাসরি ১০০০/- টাকা করে প্রদান করার কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

কারা পাবে এই প্রকল্পের লাভ | Eligibility criteria for Prochesta Prokolpo

পশ্চিমবঙ্গে বসবাসকারী যে সমস্ত অসংগঠিত শ্রমিকেরা আছেন যাঁরা পরিবহন কর্মী, নির্মান কর্মী ও অনান্য কাজে নিযুক্ত রয়েছেন এবং যাদের সামাজিক সুরক্ষা (SSY) কার্ড নেই এবং সর্বোপরি করোনা ভাইরাসের ফলে এই লোকডাউনের কারণে যারা কর্মহিন হয়ে পড়ে আছেন তাঁরাই নিতে পারবেন এই প্রকল্পের লাভ। এছাড়াও যাঁরা বার্ধক্য ভাতা, প্রতিবন্ধি ভাতা,ও রাজ্য সরকারের কোন ভাতা পান না, তাদেরকে ও এই প্রকল্পের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা  হয়েছে।

আবেদন পদ্ধতি
আবেদন পদ্ধতি

প্রকল্পের সুবিধা পেতে কি করতে হবে | What to do for Prochesta Prokolpo

প্রচেষ্টা প্রকল্পের লাভ নেবার জন্য যাদের সামাজিক সুরক্ষা (SSY) কার্ড নেই তাদের নিদিষ্ট ফর্ম পূরণ করে জমা করতে হবে। যাদের সামাজিক সুরক্ষা (SSY) কার্ড আছে তাদের কোন রকম ফর্ম ভরতে হবে না তাদের একাউন্টে সরাসরি ১০০০/- পৌঁছে যাবে। এই ফর্ম ভরার জন্য কোনো রকম অর্থমূল্যে লাগে না ; এই সেবা বিনামূল্যে প্রদান করা হচ্ছে। 

কোথায় যোগাযোগ করতে হবে  | Contact for Prochesta Prokolpo

প্রচেষ্টা প্রকল্প সম্পর্কিত ফর্মটি BDO অফিস থেকে প্রাপ্ত করা যাবে এবং ফর্মটি ভালো করে , সঠিক তথ্য দিয়ে ভরে BDO অফিসেই জমা করতে হবে।

ফর্ম টি ডাউনলোড করুন: 

এই প্রকল্পে আবেদনকারী নিজের নাম নথিভুক্ত করলে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে আগামী তিনমাস আবেদনকারীকে মাসে এক হাজার করে টাকা দেওয়া হবে। 

কিছু দিন আগেই চালু হয়েছিল “প্রচেষ্টা প্রকল্পের” জন্য ফর্ম দেওয়া এবং জমা নেওয়ার কাজ। কিন্তু যেভাবে এই ফর্ম জমা দেওয়া হচ্ছিল তাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছিল না আর তার ফলে বৃদ্ধি পাচ্ছিল করানো সংক্রমণের সম্ভাবনা।এর জেরে রাজ্য সরকার বাধ্য হয়ে এই প্রচেষ্টা প্রকল্পের ফর্ম জমা নেওয়ার কাজ বন্ধ করে দিয়েছিল।

কিছুদিন পর আবেদনের পদ্ধতির পরিবর্তন ঘটিয়ে সপ্তাহখানেকের ব্যবধানে পুনরায় শুরু করা হয় “প্রচেষ্টা প্রকল্পের” কাজ। এবার সশরীরে হাজিরা নয় ; সম্পূর্ণভাবে অনলাইনে শুরু হচ্ছে “প্রচেষ্টা প্রকল্পের” তথ্য জমা দেওয়ার কাজ। 

আবেদন প্রক্রিয়া
আবেদন প্রক্রিয়া

কোথায় পাবেন এই অ্যাপ? | Where can you find this app?

“প্রচেষ্টা প্রকল্পের” AAP GOOGLE PAY STORE এ গিয়ে ডাউনলোড করতে হবে। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে জারি ওয়েবসাইটেই এও ক্লিক করতে পারেন এবং নিজের নাম এই প্রকল্পে নথিভুক্ত করতে পারেন। 

প্রচেষ্টা প্রকল্পের অ্যাপ ডাউনলোড করার লিংকঃ http://prachestawb.in

https://wb.gov.in/ সাইটে লিঙ্ক আছে অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনের জন্য। এর পর ঐ লিঙ্কে ক্লিক করলে একটি Prochesta Prokolpo Online form ফিলাপ পেজ চলে আসবে । ঐ পেজে গিয়ে আবেদনকারীকে নিজের সম্পর্কে সমস্ত বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে। 

অ্যাপ ডাউনলোড হয়ে গেলে কী করণীয় | What to do after downloading the app

  1.  ডাউনলোড করার পর অ্যাপ এর মধ্যেই নাম, বাবার নাম, লিঙ্গ, জন্ম তারিখ, বয়স সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।
  2. ভোটার কার্ডের নং, ডিজিটাল রেশন কার্ডের নং এবং আধার কার্ডের নং সঠিক জায়গায় সঠিক স্থানে দিতে হবে।
  3. আবেদনকারীকে নিজের মোবাইল নং দিতে হবে।
  4. ঠিকানা সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে। 
  5. ব্যাঙ্কের নাম, ব্রাঞ্চের নাম, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নং এবং IFSC কোড সতর্কতার সাথে সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে। এ প্রসঙ্গে বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে আবেদনকারীর দরখাস্ত বিবেচিত হলে তবেই সেই আকাউন্টেই সরকার প্রদেয় টাকা ঢুকবে।
  6. আবেদনকারীকে দরখাস্তের সাথে নিজের ভোটার কার্ড, ডিজিটাল রেশন কার্ড, আধার কার্ড এবং ব্যাঙ্কের বইয়ের কপি আপলোড করতে হবে।
অ্যাপ ডাউনলোড
অ্যাপ ডাউনলোড

আবেদন যাচাইয়ের পদ্ধতি | Application Verification Procedure for Prochesta Prokolpo

জেলার ক্ষেত্রে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শহরাঞ্চলে (S.D.O) এবং গ্রামাঞ্চলে (B.D.O) , কলকাতা কর্পোরেশনের ক্ষেত্রে কমিশনার যারা দরখাস্ত গ্রহণ করবেন তাঁরাই পরীক্ষা ও যাচাই করার পর সিদ্ধান্ত নেবেন  দরখাস্তকারী বা দরখাস্তকারিনী করোনা মহামারীজনিত কারণে লকডাউনের ফলে প্রকৃতপক্ষে কাজ হারিয়েছেন কিনা এবং একইসাথে তার অন্য কোন আয়ের উৎস যদি না থাকে তবেই তিনি এই “prochesta prokolpo” এর সুবিধা পাবেন । ম্যাজিস্ট্রেট এবং কমিশনার এটি ও যাচাই করে দেখবেন যে আবেদনকারী আর্থিকভাবে চূড়ান্তভাবে পীড়িত কিনা ।

আবেদন গ্রহণ হলে ?

(1) উপরোক্ত সমস্ত বিষয়গুলি ভালো ভাবে বিবেচনার করা হবে এবং তারপর উচ্চ পদের আধিকারিকরা যদি মনে করেন দরখাস্তকারী বা দরখাস্তকারিনী আর্থিকভাবে চূড়ান্তভাবে পীড়িত শুধুমাত্র তাহলেই আবেদনকারীর দরখাস্ত বিবেচিত হবে ।

(2)– নোডাল ডিপার্টমেন্ট হিসাবে শ্রমদপ্তর দরখাস্তকারীদের প্রদত্ত ব্যাঙ্কে নির্ধারিত অর্থমূল্য সরাসরি পাঠিয়ে দেবে ।

প্রচেষ্টা প্রকল্পের আবেদনের কিছু শর্ত | Terms & Conditions of Prochesta Prokolpo

  1. আবেদনকারীকে পরিবারের একমাত্র রোজগেরে ব্যক্তি হতে হবে। 
  2. স্বনির্ভর হলেও রাজ্য বা বেসরকারি কোনও সংস্থার কর্মী হতে পারবেন না তিনি। 
  3. একটি পরিবার থেকে (স্বামী, স্ত্রী এবং অবিবাহিত ছেলে বা মেয়ে) এক জনই আবেদন করার সুযোগ পেয়ে থাকবেন।
  4.  আবেদনকারী যদি রাজ্য সরকারের কোনও সামাজিক পেনশন প্রাপক বা কোনও সামাজিক সুরক্ষা যোজনার উপভোক্তা হন তাহলে তিনি এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন না।
  5.  আবেদনকারী যদি একশো দিন কাজের প্রকল্প, কৃষিকাজের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকও হন তা হলেও তিনি আবেদনের জন্য বিবেচিত হবেন না। কৃষি বা তার সহযোগী কাজে যুক্ত থাকলে প্রচেষ্টা প্রকল্পের সুবিধা লাভ করা সম্ভব হবে না । 
আবেদন শেষে কি বার্তা দিচ্ছে
আবেদন শেষে কি বার্তা দিচ্ছে

প্রচেষ্টা প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় নথি | Required documents for Prochesta Prokolpo

  1. আবেদনকারীর আধার কার্ড
  2.  আবেদনকারীর ছবি 
  3. বাসস্থানের প্রমাণপত্র 
  4. ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস 
  5. বিপিএল কার্ড 
  6. আবেদনকারীর নিজস্ব মোবাইল নম্বর

প্রশ্নোত্তর - Frequently Asked Questions

প্রচেষ্ঠা প্রকল্পের জন্য কারা আবেদনের যোগ্য ?

১) পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা । ২) যিনি পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি । ৩) যদি আবেদনকারী পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কোন প্রকার পেনশন প্রকল্প যেমন- বার্ধক্যভাতা, বিধবাভাতা, অক্ষমতাভাতা ইত্যাদী এবং সামাজিক সুরক্ষা যোজনা ( SSY ) প্রকল্পের এবং MGNREGA (১০০ দিনের কাজ) প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে থাকেন তাহলে এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন না।

একটি পরিবারে কতজন আবেদন করতে পারবেন ?

একটি পরিবারে শুধুমাত্র একজনই দরখাস্ত করতে পারবেন ।

কৃষিকাজের সাথে যুক্ত শ্রমিকরা কি প্রচেষ্টা প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন ?

না। কৃষিকাজের সাথে যুক্ত কোনো শ্রমিক এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন না ।

প্রচেষ্টা প্রকল্পের আওতায় টাকা কীভাবে আসবে ?

আবেদন গ্রহণ করা হলর , নোডাল ডিপার্টমেন্ট হিসাবে শ্রমদপ্তর দরখাস্তকারীদের প্রদত্ত ব্যাঙ্কে নির্ধারিত অর্থ সরাসরি পাঠিয়ে দেবে ।

আবেদনকারী এই প্রকল্পে দরখাস্ত কিভাবে করবেন ?

আবেদনকারীকে অনলাইনে “প্রচেষ্টা অ্যাপ” (Prachesta App) এর দ্বারা আবেদন করতে পারেন । বর্তমানে অফলাইনে কোনো আবেদন গ্রাহ্য করা হয় না ।


telegram channel Viral News on Telegram

পিডিএফ ডাউনলোড | Print or Download PDF File