বাংলাদেশের রাজশাহী জেলার গরু, বাছুর, মহিষের জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করা হল

Wednesday, December 22 2021, 12:23 pm
highlightKey Highlights

ভারত সীমান্তবর্তী রাজশাহীর গোদাগাড়ী ও চারঘাটের সীমান্তবর্তী চরাঞ্চলে কোন বাসিন্দা যদি গরু, মহিষ বা বাছুর পালন করতে চান তাহলে তাকে সেইসব পশুর নিবন্ধন করাতে হবে।


বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি এবং গোদাগাড়ী উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী আষাড়িয়াদহ ইউনিয়ন পরিষদের তরফ থেকে নিশ্চিত করা হল নিবন্ধন করার বিষয়ে। পশুর মালিকদের নিবন্ধন ও হালনাগাদের কাজটিও বিজিবি ক্যাম্প এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারের কাছে গিয়ে করতে হয়।

গোদাগাড়ী ও চারঘাটে গরু-মহিষ রেজিস্ট্রেশন বা জন্মনিবন্ধন বাধ্যতামূলক
গোদাগাড়ী ও চারঘাটে গরু-মহিষ রেজিস্ট্রেশন বা জন্মনিবন্ধন বাধ্যতামূলক

প্রতিটি গরু ও মালিকদের যাবতীয় তথ্য স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্পে ও ইউনিয়ন পরিষদে থাকবে

জেলার সীমান্তবর্তী এলাকার প্রতিটি ক্যাম্পে প্রায় ৩০ জন বিজিবি সদস্য দায়িত্ব পালন করেন। মোট ১২টি বিওপির মধ্যে পদ্মা নদীর ওপারে রয়েছে ৪টি। তবে শুধু গোদাগাড়ী উপজেলার চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে ৪ হাজার বাড়িতে রয়েছে ২৫ হাজার গরু। বর্তমানে প্রতিটি পরিবারে গড়ে ৫-৭টি করে গরু পালন করা হচ্ছে। এই সকল তথ্যই স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্প এবং ইউনিয়ন পরিষদে থাকবে। 

পশু বাচ্চা জন্ম দিলে কিংবা পশু বিক্রি করতে তথ্য হালনাগাদ করতে হয়
পশু বাচ্চা জন্ম দিলে কিংবা পশু বিক্রি করতে তথ্য হালনাগাদ করতে হয়

এই ব্যবস্থার ফলে দুর্ভোগে সাধারণ মানুষ

নিবন্ধনের এই কাজটি সম্পন্ন করতে পশুর মালিকদের একাধিক জায়গায় যেতে হয়। অনেক নথিপত্রের কাজও রয়েছে। এসব কারণে গ্রামের স্বল্পশিক্ষিত মানুষের জন্য বিশেষ করে যারা দূরবর্তী অঞ্চলে থাকেন তাদের ব্যাপক দুভোর্গ পোহাতে হয়।


telegram channel Viral News on Telegram