ভেষজ রং, সুতোর সূক্ষ্ম কারুকাজ, বঙ্গের শিল্পীদের হাতে তৈরি শাড়ি চড়া দামে বিকোচ্ছে বিদেশে।

ভেষজ রং, সুতোর সূক্ষ্ম কারুকাজ, বঙ্গের শিল্পীদের হাতে তৈরি শাড়ি চড়া দামে বিকোচ্ছে বিদেশে।
ফ্যাশন১ ডিসেম্বর ২০২০
গাঁদা ফুলের পাঁপড়ি, চা-পাতাকে প্রাকৃতিকভাবে ব্যবহার করে রং তৈরি করে রাঙানো হয় সুতির শাড়ি। তার উপর সূঁচ-সুতো দিয়ে ফুটিয়ে তোলা হয় সূক্ষ্ম কারুকাজ। তাঁত হোক কিংবা খাদি অথবা মসলিন, জামদানি – কাটোয়ার শিল্পীদের হাতে তৈরি শাড়ির দরও তাই উঠছে চড়চড়িয়ে। দেশ, বিদেশের বড় বড় বাজারে এই শাড়ি বিক্রি হচ্ছে লক্ষাধিক টাকায়। ফ্যাশনে ইন হ্যান্ডলুমের বাজারে এসব শাড়ি দেখলে চোখ ফেরাতে পারবেন না আপনিও। কাটোয়া ২ ব্লকের জগদানন্দপুর পঞ্চায়েতের ঘোড়ানাশ, মুস্থলি গ্রামের তাঁতশিল্পীদের থেকে জানা গেল, লকডাউনের বিরতি কাটিয়ে নতুনভাবে ঘুরে দাঁড়াচ্ছেন তাঁরা। তৈরি হচ্ছে নতুন রং, হাতে ফুটছে নতুন নকশা। বাড়িতে বসেই এখন শিল্পীরা ভাল উপার্জন করছেন।

লেটেস্ট আপডেট